টপ ৫: প্রাকৃতিক উপায়ে মাছি তাড়ানোর উপায়

ঘরে–বাইরে মাছির উপদ্রব খু্বই বিরক্তিকর। বাড়ির অন্যান্য ঘরের তুলনায় রান্নাঘর এবং খাবারের ঘরে মাছির উপদ্রব বেশি থাকে। আর যে কোন মৌসুমেই মাছির উপদ্রব দেখা গেলেও গ্রীষ্মকালেই সবচেয়ে বেশি এদের যন্ত্রণায় পড়তে হয়। মাছি কেবলই যে বিরক্তিকর তাও নয়, নানারকম রোগের জীবাণুও বহন করে বেড়ায় এরা। এরা থাকেও নোংরা এবং অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে। তাই মাছি বসা খাবার খাওয়া একদমই ঠিক নয়। ঘর থেকে মাছি তাড়ানো খুবই কঠিন কাজ। বাজারে মাছি তাড়ানোর নানা রকম ঔষধ ও স্প্রে পাওয়া গেলেও অনেকেই বাচ্চা ছেলেমেয়ের কথা ভেবে এসব ব্যবহার করেন না। তাই খুজে বেড়ান প্রাকৃতিক উপায়ে মাছি তাড়ানোর উপায়। আর আপনিও যদি তেমন কেউই হয়ে থাকেন তবে চলুন আর দেরী না করে জেনে নেই প্রাকৃতিক উপায়ে মাছি তাড়ানোর উপায় গুলো কি কি।

প্রাকৃতিক উপায়ে মাছি তাড়ানোর উপায়

আপেল এবং লবঙ্গ

আপেল এবং লবঙ্গ
আপেল এবং লবঙ্গ

মাছি লবঙ্গের গন্ধ সহ্য করতে পারে না। তাই প্রাকৃতিক উপায়ে মাছি তাড়ানোর উপায় হিসেবে লবঙ্গ খুব উপকারী। এক্ষেত্রে একটি পাত্রে আপেলের সাথে ২০-২৫ টি লবঙ্গ গেঁথে রান্নাঘর, খাবার কিংবা অন্যান্য ঘরের জানালার পাশে রেখে দিন। আপনি চাইলে লবঙ্গর পরিবর্তে এক্ষেত্রে লবঙ্গ তেলও ব্যবহার করতে পারেন। লবঙ্গযুক্ত এই আপেল আপনি চাইলে কয়েকদিন রেখে দিতে পারবেন।

লেবু জাতীয় ফলসমূহ

লেবু
লেবু

বেশিরভাগ রাসায়নিক ঔষধই লেবু বা লেবু জাতীয় ফলসমূহ ব্যবহার করে। আর তা কেবল এদের নির্যাসের জন্যই নয়, এসব লেবু জাতীয় ফল একটি প্রাকৃতিক পোকামাকড় প্রতিরোধক। তাই মাছি তাড়াতে লেবু জাতীয় ফলসমূহ দারুন কার্যকরী। এক্ষেত্রে এসব ফল কেটে টুকরো করে জানালার পাশে রেখে দিতে পারেন কিংবা পানির সাথে মিশিয়ে স্প্রে করতে পারেন। আপনি চাইলে টুকরো করা লেবুতে লবঙ্গও গেঁথে দিতে পারেন।

পুদিনাপাতা

পুদিনাপাতা
পুদিনাপাতা

পুদিনাপাতার হাজারও গুণ আছে। এটি খাবারে যেমন স্বাদ আনে তেমনি মাছি তাড়াতেও জুড়ি নেই। এজন্য বাগানে পুদিনাপাতার গাছ লাগান। ঘরের টবে পুদিনাপাতার গাছ লাগান এবং সেটি খাবার ঘরের জানালার পাশে রাখুন। দেখবেন মাছি আপনার ঘরে আসছে না।

ল্যাভেন্ডার

ল্যাভেন্ডার

প্রাকৃতিক উপায়ে মাছি তাড়ানোর একটি কার্যকরী উপায় হল ল্যাভেন্ডারের ব্যবহার। মাছি একেবারেই ল্যাভেন্ডারের গন্ধ সহ্য করতে পারে না। এজন্য আপনি বাগানে ল্যাভেন্ডার গাছ লাগাতে পারেন কিংবা একটি ফুলদানিতে তাজা ল্যাভেন্ডার ফুলের তোড়া রাখতে পারেন। এছাড়া জানালার কাছে ল্যাভেন্ডার তেল জ্বালানো বা ঘরের চারপাশে ল্যাভেন্ডারসমৃদ্ধ মোমবাতি জ্বালানোও মাছি তাড়ানোর উত্তম উপায়। বাড়তি পাওনা হিসেবে এসব ল্যাভেন্ডার আপনার ঘরে সুগন্ধির কাজও করবে।

শসা

শসা
শসা

শসাও মাছি তাড়ানোর জন্য বেশ কার্যকরী। এজন্য কয়েক টুকরো শসা রান্নাঘরের, খাবার ঘরের বা অন্য কোন ঘরের জানলার পাশে রেখে দিন। দেখবেন ঘরে আর মাছি আসছে না।

প্রাকৃতিক উপায়ে মাছি তাড়ানোর জন্য আরো কিছু উপায়

মাছির খাবারের উৎস ফেলে দিন: নোংরা পাত্র, ফেলে দেওয়া খাবার, পোষা প্রাণীর খাবারের পাত্র মাছিদের খাদ্যের চমৎকার উৎস। তাই নিশ্চিত করুন বাড়ির কোথাও যেন এসব পরে না থাকে। এক্ষেত্রে প্রতিদিন বাড়ি পরিষ্কার করুন।

পোষা প্রাণীর বিষ্ঠা দূর করুন: পোষা প্রাণীর বিষ্ঠা মাছিদের ডিম পাড়ার মোক্ষম জায়গা। মাছিরা একবারে প্রায় ১০০টি ডিম পাড়ে [সোর্স]। আর মাত্র ২৪ ঘণ্টার মধ্যেই ডিম ফুটে বাচ্চা জন্ম নেয়। তাই আলসেমি করে পোষা প্রাণীর বিষ্ঠা প্রতিদিন পরিষ্কার করুন এবং খাঁচা রাখুন পরিষ্কার।

ঘরে মাছি ঢোকার পথ বন্ধ করুন: ঘর থেকে মাছি তাড়ানোর আগে নিশ্চিত করুন মাছি ঢোকার পথগুলো বন্ধ কিনা। খুঁজে দেখুন, কোন পথ দিয়ে মাছি বেশি আসছে। হয়তো জানালার পর্দা ফুটো। নয়তো জানালার কাচে থাকতে পারে ফাঁক। এ রকম আরও নানা ধরনের পথ থাকলে মাছি ঢুকবেই। অতি দ্রুত সেসব পথ বন্ধ করুন। এক্ষেত্রে জানালা এবং অন্যান্য প্রবেশ পথে নেট (জাল) ব্যবহার করতে পারেন।

বিশেষ কিছু গাছ রোপণ করুন: ঘরে প্রাকৃতিক উপায়ে মাছি তাড়ানোর জন্য বিশেষ কিছু গাছ লাগাতে পারেন। তবে এই গাছগুলো খুবই পরিচিত এবং বড়সড় উদ্ভিদও নয়, গুল্মজাতীয় উদ্ভিদ। এমন কিছু গাছ হল পুদিনা, লেমনগ্রাস ও তুলসী। তাই বাগান থাকলে সেখানে তো থাকতেই পারে। আর নাহয় বাসার ভেতরে টবে লাগাতে পারেন এই গাছগুলো। এছাড়া তেজপাতা ও নিম গাছও মাছি তাড়ানোর জন্য উপকারী।

data-matched-content-rows-num="2" data-matched-content-columns-num="2"

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

16 Shares
Share via
Copy link