টপ ৫: আফ্রিকার সবচেয়ে ভয়ংকর ৫ প্রাণী

 

আফ্রিকা, বিশ্ব জীব বিচিত্রের প্রান কেন্দ্র। আর “কালো বনভূমি” নামে বিখ্যাত আফ্রিকার জঙ্গল। মাইলের পর মাইল জুড়ে ঘন গহীন এসব ভয়ঙ্কর বনভূমি। আর এসব বনভূমিতে বাস করে আফ্রিকান রক পাইথন বা আফ্রিকার অজগর কিংবা আফ্রিকান সিংহ অথবা আফ্রিকান চিতা! আফ্রিকার কোন প্রাণীর নামই হয়তো আপনার অজানা নয়? কিন্তু আপনি কি জানেন আফ্রিকার সেরা ৫ ভয়ংকর প্রাণীগুলো সম্পর্কে? তো আর দেরি কেনো? যারা ওয়াইল্ড লাইফ ভালবাসেন তারা জেনে নিন টপ ৫: আফ্রিকার সবচেয়ে ভয়ংকর ৫ প্রাণী সম্পর্কে।

আফ্রিকার সবচেয়ে ভয়ংকর প্রাণী

আফ্রিকান বন মহিষ

আফ্রিকান বন মহিষ

৫. আফ্রিকান বন মহিষ: লিস্টের ৫ নম্বরে রয়েছে আফ্রিকান বন মহিষ। এরা এক এক জন কয়কটন পর্যন্ত হয়ে থাকে। এদের শক্তি এদের শরীরের ওজন এবং বদ মেজাজ। এদের কেউ উত্যক্ত করলেই তার আর রক্ষে নেই! বন বিশ্লেষকরা বলেন এদের স্মৃতি শক্তিও প্রখর। একবার এক দল শিকারি একটি বন মহিষকে গুলি করলে সেই গুলি গিয়ে লাগে মহিষের পাঁজরে। সে মহিষ তাৎক্ষণিক পালিয়ে গেলেও পরে ওই শিকারি দলের উপর চোরা গুপ্তা হামলা করে যে গুলি করে তাঁকে হত্যা করে।

আরো পড়ুন:  টপ ৫: আমাজন বনের সবচেয়ে বিপজ্জনক ও হিংস্র প্রাণী
গণ্ডার

গণ্ডার

৪. আফ্রিকান গণ্ডার: লিস্টের ৪ নম্বরে রয়েছে গণ্ডার। আফ্রিকান গণ্ডার খুব একটা বদ মেজাজি তা কিন্তু না! তবে কেউ একে উৎপাত করলে তার জন্য নেমে আসতে পারে পৃথিবীর সবচেয়ে ভয়াবহ করুণ মৃত্যু। গণ্ডার দল বেধে অবস্থান করলেও এরা কিন্তু নিজেদের শাবক নিয়ে নিজেদের সুরক্ষা করে থাকে। এদের মাঝে পুরুষে পুরুষে ক্ষমতার জন্য এবং নারী সঙ্গী পাওয়ার জন্য যুদ্ধ হয়। কখনো কখনো সে সব যুদ্ধ মৃত্যুতে শেষ হয়।

আফ্রিকান স্পটেড হায়না

আফ্রিকান স্পটেড হায়না

৩. আফ্রিকান হায়না: লিস্টের ৩য় স্থানে রয়েছে আফ্রিকান হায়না। হায়নাকে কে না চেনেন? দুই প্রকারের হায়েনা আফ্রিকাতে রয়েছে এক প্রজাতি হচ্ছে ব্রাউন হায়েনা অন্য প্রজাতি হচ্ছে স্পটেড হেয়েনা। ব্রাউন হায়না সাধারণত যাযাবর সভাবের হয়ে থাকে এরা একা একাই চলাফেরা করে। অপর দিকে আফ্রিকার ত্রাসের চেয়েও বড় ত্রাস হচ্ছে স্পটেড হায়েনা, এরা পৃথিবীর সবচেয়ে বড় সামাজিক ঐক্যবদ্ধ প্রাণী। এদের এক এক দলে প্রায় ৮০ থেকে ২০০টিরও বেশি হায়েনা থাকে। এরা নিজের থেকে অনেক বড় প্রাণী শিকার করতে সক্ষম। এদের চোয়াল এদেরকে দিয়েছে আলাদা মর্যাদা। এরা শক্তিশালী চোয়াল দিয়ে সিংহ থেকেও অনেক জোরে কামড় বসাতে সক্ষম। কি নেই এদের শিকারের তালিকায়? সিংহ থেকে শুরু করে এরা উচ্ছিষ্ট সব কিছুই খায় এবং প্রয়োজনে ভয়ংকর কায়দায় হত্যা করে। এরা শিকার ধরে জীবিত অবস্থায় খাওয়া শুরু করে দেয়, শিকারের কোন অংশই এরা অবশিষ্ট রাখেনা।

আরো পড়ুন:  টপ ৫: বিশ্বের সবচেয়ে বুদ্ধিমান প্রাণী (মানুষ ব্যতীত)
আফ্রিকান সিংহ

আফ্রিকান সিংহ

২. আফ্রিকান সিংহ: লিস্টের ২য় স্থানে রয়েছে আফ্রিকান সিংহ। আফ্রিকান লায়ন বা সিংহ বনের রাজা! এরা গত্র ভাগে নির্দিষ্ট এলাকায় ভাগ হয়ে অবস্থা করে। এক এলাকার সিংহ অন্য এলাকায় যেতে বা সেখানে গিয়ে শিকার ধরতে পারেনা। আফ্রিকান সিংহ বীর্য এবং দাম্ভিকতার প্রতীক। শক্তি, ক্ষমতা সক্ষমতা কি নেই এদের? দল গত ভাবে শিকারকে আক্রমন করে এরা হত্যা করে। সিংহের মূলত দুটি প্রজাতি বর্তমানে টিকে আছে। একটি হল আফ্রিকান সিংহ অপরটি হল এশীয় সিংহ। তবে পশ্চিম আফ্রিকায় আশঙ্কাজনকহারে বিলুপ্ত হয়ে যাচ্ছে বনের রাজা আফ্রিকান সিংহ। ওই অঞ্চলে মাত্র ৪শ’টির মতো সিংহ আছে এখন। এদের হুঙ্কার গর্জন কয়েক মাইল দূর থেকে শিকারের মনে ভয় ধরিয়ে দেয়।

আফ্রিকান জলহস্তী

আফ্রিকান জলহস্তী

১. আফ্রিকান জলহস্তী: লিস্টের ১ম স্থানে রয়েছে জলহস্তী। একটি জলহস্তী প্রায় কয়েক টন ওজনের হয়ে থাকে। এদেরকে দেখতে নিরীহ মনে হলেও আফ্রিকাতে সবচেয়ে বেশি মৃত্যু হয় জলহস্তীর আক্রমনেই। আর একারনেই হায়না – সিংহদের টপকে ১ নম্বরে রয়েছে জলহস্তীরা। এদের শক্তির প্রধান বিষয় হচ্ছে এর ওজন এবং বিশাল পেশীবহুল চোয়াল। এরা তাদের নিজেদের কলোনি এবং সীমানায় অন্য কেউ প্রবেশ করুক তা কখনোই মেনে নেয় না। ঠিক এই কারণেই আফ্রিকাতে প্রতিবছর অসংখ্য মানুষ এবং বন্য প্রাণী করুন ভাবে এসব জলহস্তীর আক্রমণের শিকার হয়।

এছাড়া আফ্রিকার আরো কিছু ভয়ংকর প্রাণী হলো: আফ্রিকান চিতা, আফ্রিকান হাতি, দ্যা ব্ল্যাক মাম্বা, কুমির, আফ্রিকান স্কর্পিয়ানস বা বিছা ইত্যাদি।

data-matched-content-rows-num="2" data-matched-content-columns-num="2"

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

8 Shares
Share via
Copy link
Powered by Social Snap