টপ ৫: বিশ্বের সবচেয়ে ধনী দেশ

https://youtu.be/v7_-oNgjxhU

বিশ্বের সবচেয়ে ধনী দেশ কোনটি – এককথায় এ প্রশ্নটির উত্তর দেওয়া কঠিন। তবে অর্থনীতিবিদদের একটি বড় অংশ মনে করে, ক্রয়ক্ষমতার সমতার ভিত্তিতে বা পিপিপি ডলারে যে দেশের মাথাপিছু জাতীয় আয় যত বেশি সে দেশ তত বেশি ধনী। আর এই মাথাপিছু আয়ের সাথে মোট জনসংখ্যার সম্পর্ক থাকার কারনে ছোট জনসংখ্যার দেশগুলোতে উচ্চ মাথাপিছু আয় দেখা যায়। সম্প্রতি এই মাথাপিছু আয়ের ভিত্তিতে বিশ্বের সবচেয়ে ধনী দেশ গুলোর একটি তালিকা তৈরি করেছে গ্লোবাল ফাইন্যান্স ম্যাগাজিন বা জিএফম্যাগ। চলুন দেখে নেই তালিকায় থাকা বিশ্বের সবচেয়ে ধনী ৫ দেশ কোনগুলো:

বিশ্বের সবচেয়ে ধনী দেশ

আয়ারল্যান্ড

আয়ারল্যান্ড
আয়ারল্যান্ড

বিশ্বের সবচেয়ে ধনী দেশের তালিকায় ৫ম স্থানে আছে ইউরোপের দেশ আয়ারল্যান্ড। প্রায় ৬৫ লাখ জনসংখ্যার এই দেশটিতে ক্রয়ক্ষমতার সমতা অনুসারে মাথাপিছু আয় ৮২,৪৩৯ মার্কিন ডলার। আয়ারল্যান্ডের আয়ের অন্যতম ক্ষেত্রগুলো হল টেক্সটাইল, খনন (মাইনিং) এবং খাদ্য উৎপাদন।

ব্রুনাই

ব্রুনাই
ব্রুনাই

লিস্টের পরবর্তী স্থানে আছে দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার অন্যতম দেশ ব্রুনাই। ক্রয়ক্ষমতার সমতা অনুসারে ব্রুনাই এর মাথাপিছু আয় ৮৩,৭৭৭ মার্কিন ডলার। দেশটির জিডিপির অধিকাংশই আসে পেট্রোলিয়াম জাতীয় পণ্য রপ্তানি থেকে। কেননা তরলীকৃত প্রাকৃতিক গ্যাসের উৎপাদক হিসাবে ব্রুনাই বিশ্বে ৯ম এবং তেল উৎপাদনকারী দেশ হিসেবে দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার তৃতীয় বৃহত্তম। তবে বর্তমানে দেশটির সরকার পেট্রোলিয়াম উপর রাজস্বের অতিরিক্ত নির্ভরতা কমাতে কাজ করছে।

সিঙ্গাপুর

সিঙ্গাপুর
সিঙ্গাপুর

লিস্টের ৩য় স্থানে আছে সিঙ্গাপুর। ছোট এই দেশটির জনসংখ্যা মাত্র ৫৫ লাখ আর ক্রয়ক্ষমতার সমতা অনুসারে মাথাপিছু আয় ১০৩,৭১৭ মার্কিন ডলার। দেশটির আয়ের অন্যতম ক্ষেত্রগুলো হল আর্থিক পরিষেবা, রাসায়নিক রপ্তানি শিল্প, উদার অর্থনৈতিক নীতি এবং পর্যটন।

লুক্সেমবুর্গ

লুক্সেমবুর্গ
লুক্সেমবুর্গ

লিস্টের পরবর্তী স্থানে আছে লুক্সেমবুর্গ, যাকে বলা হয় ‘ট্যাক্স হ্যাভেন’ বা করের স্বর্গ। দেশটি ইউরোপের সবচেয়ে উন্নত দেশগুলোর একটি। দেশটির বর্তমান মাথাপিছু আয় ১০৮,৮১৩ মার্কিন ডলার। দেশটির আয়ের অন্যতম কারণগুলো হল দূরদর্শী রাজস্ব নীতি, প্রগতিশীল শিল্প ও ইস্পাত খাত এবং প্রতিযোগিতামূলক ব্যাংকিং খাত।

কাতার

কাতার
কাতার

মাত্র ২৬ লাখের বেশি নাগরিক নিয়ে এ মুহূর্তে বিশ্বের সবচেয়ে ধনী দেশ হল কাতার। ক্রয়ক্ষমতার সমতা অনুসারে কাতারের মাথাপিছু আয় ১৩৪,৬২৩ মার্কিন ডলার। যদিও জিডিপির ভিত্তিতে দেশটি ৫০ এর ঘরে, তবে কম জনসংখ্যার কারনে উচ্চ মাথাপিছু আয় রয়েছে। কাতারের সরকারি আয়ের ৭০ ভাগ, রপ্তানি আয়ের ৮৫ ভাগ এবং মোট জিডিপির ৬০ ভাগই আসে পেট্রোলিয়াম ইন্ডাস্ট্রি থেকে। কেননা বিশ্বের সবচেয়ে বড় পেট্রোলিয়াম শিল্প এই কাতারেই।

বিঃদ্রঃ গ্লোবাল ফাইন্যান্স ম্যাগাজিনের লিস্টে ম্যাকাও কে রাখা হলেও এটি চীনের বিশেষ প্রশাসনিক অঞ্চল হওয়ায় আমাদের লিস্টে ম্যাকাওকে রাখা হয়নি।

data-matched-content-rows-num="2" data-matched-content-columns-num="2"

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

8 Shares
Share via
Copy link