টপ ৫: অ্যান্ড্রয়েডের জন্য সবচেয়ে সেরা ভিপিএন অ্যাপ

ইন্টারনেটের দুনিয়ায় যাদের হরদম যাতায়াত, তারা কমপক্ষে একবার হলেও ভিপিএন (VPN) শব্দটি শুনেছেন। আমাদের অনেকের নানা কাজে অনলাইনে নিজেকে গোপন রাখতে, তথ্য সুরক্ষিত রাখতে আরও নানাবিধ কাজে এই ভিপিএন (VPN) এর প্রয়োজন পড়ে। তবে এই কাজে অনেক সময়ই দেখা যায় আমরা নির্ভরযোগ্য সার্ভিস বাছাই করতে দ্বিধায় ভুগি। তাই ভিপিএন নিয়ে দূশ্চিন্তা দূর করতে, অ্যান্ড্রয়েডের জন্য সবচেয়ে সেরা ৫ টি ভিপিএন অ্যাপ নিয়ে আমাদের আজকের আয়োজন।

অ্যান্ড্রয়েডের জন্য সবচেয়ে সেরা ভিপিএন অ্যাপ

টার্বো ভিপিএন (Turbo VPN)

টার্বো ভিপিএন (Turbo VPN)

টার্বো ভিপিএন (Turbo VPN)

সরলতা, কর্মক্ষমতা, এবং নির্ভরযোগ্যতার কারনে টার্বো ভিপিএন অ্যান্ড্রয়েডের অন্যতম সেরা ভিপিএন। তার উপর এটি সম্পূর্ণ ফ্রী একটি অ্যাপ। তবুও অন্যান্য ভিপিএন অ্যাপের তুলনায় এটি খুব দ্রুত। আর চালু করাও খুব সহজ। অ্যাপ লঞ্চ করে এক ক্লিকেই চালু করতে পারবেন ভিপিএন। ফ্রী হওয়ার কারনে টার্বো ভিপিএন (Turbo VPN) বিজ্ঞাপন দেখায়। তবে তা বিরক্তিকর নয়। আন্ড্রয়েডে এর ইন্সটল সংখ্যা ১০,০০০,০০০+ এবং রেটিং ৪.৭ (১,২৪০,৫০৭ রিভিউ)।

আরো পড়ুন:  টপ ৫: অ্যান্ড্রয়েড মোবাইল এর জন্য সেরা ভিডিও এডিটর (২০১৭)

এক্সপ্রেস ভিপিএন (ExpressVPN)

এক্সপ্রেস ভিপিএন (ExpressVPN)

এক্সপ্রেস ভিপিএন (ExpressVPN)

এই এক্সপ্রেস ভিপিএন (ExpressVPN) অ্যাপটি প্লে-স্টোরের অন্যতম সেরা ভিপিএন অ্যাপ। এটি প্লে-স্টোরের এডিটর’স চয়েস ভিপিএন অ্যাপ। এটি সাইজেও খুব ছোট। তবে ছোট হলেও কাজের কাজ কিন্তু খুব ভালভাবেই করে। এটি সিকিউরিটির দিক দিয়েও খুব ভালো। এতে আছে ২৫৬ বিট এসএসএল এনক্রিপশন। ৯৪ টি দেশের লোকেশন আছে এতে। আর হ্যাঁ, এটি কিন্তু পেইড সার্ভিস। আন্ড্রয়েডে এর ইন্সটল সংখ্যা ৫,০০০,০০০+ এবং রেটিং ৪.৬ (৪৯,২৭১ রিভিউ)।

বেটারনেট (Betternet)

বেটারনেট ভিপিএন (Betternet)

বেটারনেট ভিপিএন (Betternet)

অ্যান্ড্রয়েডের অন্যতম সেরা ভিপিএন অ্যাপ হল বেটারনেট ভিপিএন (Betternet)। এর ইন্টারফেস খুবই সিম্পল। এক টাচেই ভিপিএন এনাবল করতে পারবেন। গতিও খুব ভালো। বেটারনেট (Betternet) ভিপিএন এর দুইটি ভার্শন আছে – পেইড এবং ফ্রী। ফ্রী বেটারনেট (Betternet) ভার্শনে ভিডিও বিজ্ঞাপন এবং স্পনসর্ড অ্যাপ দেখানো হয়। আন্ড্রয়েডে এর ইন্সটল সংখ্যা ১০,০০০,০০০+ এবং রেটিং ৪.৫ (৮০৫,৩২৭ রিভিউ)।

আরো পড়ুন:  অ্যান্ড্রয়েড বনাম আইওএস: কোনটি সেরা অপারেটিং সিস্টেম?

টানেল-বিয়ার (TunnelBear)

টানেল-বিয়ার (TunnelBear)

টানেল-বিয়ার (TunnelBear)

এই ভিপিএন টি খুবই কাজের। বিশেষ করে McAfee এর মালিকানা নেওয়ার পর থেকে এটি আরো শক্তিশালী হয়ে উঠেছে। টানেল-বিয়ার (TunnelBear) ভিপিএন এর দুইটি ভার্শন আছে – পেইড এবং ফ্রী। ফ্রী টানেল-বিয়ার (TunnelBear) ভার্শনে আপনি পাবেন কেবল মাত্র ৫০০ এমবি। অ্যাপেল আইটিউনসেও এটি খুব জনপ্রিয়। রিভিউ থেকে প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী এর ইউজার ইন্টারফেস, কাস্টমার সার্ভিস এবং কম বিজ্ঞাপন বেশি বেশি ব্যবহারকারীকে এর প্রতি আকৃষ্ঠ করতে পেরেছে। আন্ড্রয়েডে এর ইন্সটল সংখ্যা ৫,০০০,০০০+ এবং রেটিং ৪.৪ (১৪০৩৬০ রিভিউ)।

সার্ফ ইজি (SurfEasy)

সার্ফ ইজি (SurfEasy)

সার্ফ ইজি (SurfEasy)

অ্যান্ড্রয়েডের জন্য সার্ফইজি বিশ্বের অন্যতম বিশ্বাসযোগ্য একটি ভিপিএন অ্যাপ। এর বেশ কিছু খুব ভালো ফিচার রয়েছে। এতে রয়েছে ২৮ টি দেশের প্রায় ৫০০ টির মত সার্ভার। সার্ফ ইজি (SurfEasy) ভিপিএন এর দুইটি ভার্শন আছে – পেইড এবং ফ্রী। ফ্রী সার্ফ ইজি (SurfEasy) ভার্শনে আপনি পাবেন কেবল মাত্র ৫০০ এমবি। আন্ড্রয়েডে এর ইন্সটল সংখ্যা ৫,০০০,০০০+ এবং রেটিং ৪.৫ (২৭৩,৯৩৯ রিভিউ)।

ভিপিএন নিঃসন্দেহে ইন্টারনেটে আপনার ব্যক্তিগত নিরাপত্তা ও গোপনীয়তা বজায় রাখার অন্যতম সেরা একটি মাধ্যম। তবে, গোপনীয়তা রক্ষার জন্য VPN-ই একমাত্র পথ নয়। গোপনীয়তা রক্ষার জন্য এর থেকেও অনেক শক্তিশালী অনেক উপায় রয়েছে। টর ব্রাউজার হল তার অন্যতম উদাহরণ। তবে সেটা ব্যবহার করা VPN ব্যবহারের থেকে অনেক বেশি জটিল। তাই সবকিছু মিলিয়ে সাধারণ একজন ব্যবহারকারীর জন্য VPN ব্যবহার করাই সবথেকে ভালো।

data-matched-content-rows-num="2" data-matched-content-columns-num="2"

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *