টপ ৫: ২০১৭ সালের সেরা ৫ টি স্মার্টফোন

২০১৭ সাল সকল মোবাইল ফোন প্রেমীদের জন্য যেন স্বপ্নের মত কেটেছে। প্রায় প্রতি মাসেই বের হয়েছে কোন না কোন কোম্পানির ফ্ল্যাগশিপ স্মার্টফোন। আর তাই স্মার্টফোনের বাজার অনেকটাই সরগরম। নতুন এই ফ্ল্যাগশিপ স্মার্টফোনগুলো ব্যবহারকারীদের স্মার্টফোন ব্যবহারের অভিজ্ঞতাকে করেছে সমৃদ্ধ। মোবাইল কোম্পানি গুলোও প্রতিযোগিতায় লাগে স্মার্টফোনগুলোতে নিত্যনতুন আকর্ষনীয় ফিচার জুড়ে দিতে। প্রথম দিকে অ্যান্ড্রয়েড ফোনগুলো বাজার মাতালেও শেষ দিকে এসে আইফোন রিলিজের পর বাজারে অনেকটাই উল্টে যায়। তবে শেষ দিকে এবং পুরো বছর জুড়েই বেশ কিছু ভালমানের এবং হাই-এন্ড স্মার্টফোন দেখা যায়। আর আপনি যদি স্মার্টফোন কিনার কথা ভেবে থাকেন তবে অবশ্যই দেখে নিবেন আমাদের ২০১৭ সালের সেরা ৫ টি স্মার্টফোনের লিস্টটি। তো চলুন আর কথা না বারিয়ে দেখে নেই ২০১৭ সালের সেরা ৫ টি স্মার্টফোন:

২০১৭ সালের সেরা ৫ টি স্মার্টফোন

(Best Smartphones of 2017)

গুগল পিক্সেল ২ এক্সএল

গুগল পিক্সেল ২ এক্সএল

গুগল পিক্সেল ২ এক্সএল

লিস্টের ৫ম স্থানে আছে গুগলের নিজস্ব অ্যান্ড্রয়েড ফোন গুগল পিক্সেল ২ এক্সএল (Google Pixel 2 XL)। এতে রয়েছে ৬ ইঞ্চি মাপের ডিসপ্লে। যার ফ্রন্ট ক্যামেরায় আছে ৮ মেগাপিক্সেল আর রিয়ার ক্যামেরায় (পিছনের ক্যামেরা) আছে ১২ দশমিক ২ মেগাপিক্সেল। এতে পাওয়া যাবে অ্যান্ড্রয়েডের সর্বশেষ ভার্সন ওরিও ৮.০। সঙ্গে রয়েছে ৩৫২০ এমএএইচ ব্যাটারি, ১৪৪০*২৮৮০ পিক্সেল রেজুলেশন এবং ৪ জিবি র‍্যাম। এতে আরো ব্যবহার করা হয়েছে ১.৯ গিগাহার্টজ অক্টাকোর কোয়ালকম স্ন‍্যাপড্রাগনের ৮৩৫ (Qualcomm Snapdragon 835) প্রসেসর এবং ফাস্ট চার্জিং (Fast charging) প্রযুক্তি। তবে এই স্মার্টফোনটিতে কোনো হেডফোন জ্যাক নেই। তাই ব্যবহারকারীদেরকে তারবিহীন হেডফোন ব্যবহার করতে হবে। আর এই জন্য গুগল আলাদাভাবে বিক্রি করছে পিক্সেল বাডস বা ইউএস বি সি চার্জিং সকেট। স্মার্টফোনটি পাওয়া যাবে ৬৪ গিগাবাইট ও ১২৮ গিগাবাইটের দুটি ভিন্ন সংস্করণে। বাংলাদেশের বাজারে এই স্মার্টফোনটির মুল্য প্রায় ৬৯,৯০০ (৬৪ গিগাবাইট) এবং ৭৯,৯০০ টাকা (১২৮ গিগাবাইট)।

এইচটিসি ইউ১১

এইচটিসি ইউ১১

এইচটিসি ইউ১১

২০১৭ সালের সেরা ৫ টি স্মার্টফোনের ৪র্থ স্থানে রয়েছে এইচটিসি ইউ১১ (HTC U11)। ২০১৬ সালে এইচটিসি ইউ১০ (HTC U10) দিয়ে সফলতা পাওয়ার পর ২০১৭ সালে তাইওয়ান কোম্পানি এইচটিসি বের করে এইচটিসি ইউ১১ (HTC U11) ফ্ল্যাগশিপ স্মার্টফোনটি। নান্দনিক ডিজাইন, সারাদিন চলার মত ব্যাটারি লাইফ এবং স্মুথ এক্সপেরিয়েন্সের জন্য স্মার্টফোনটি সকল অ্যান্ড্রয়েড প্রেমীদের নজর কাড়ে। ক্যামেরা এবং পারফর্মেন্সের দিক দিয়ে এটি তালিকার পরবর্তী স্মার্টফোনগুলোর কাছাকাছি। এই স্মার্টফোনটি চলবে অ্যান্ড্রয়েড ৭.১ নুগাট অপারেটিং সিস্টেমে। এছাড়া থাকছে কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৮৩৫ (Qualcomm Snapdragon 835) প্রসেসর এবং ৪ ও ৬ জিবি র‍্যাম এর দুইটি ভিন্ন সংস্করণ। স্মার্টফোনটির পেছনে আগ্রহ থাকার অন্যতম আরেকটি কারণ হলো এর স্কুইজেবল ফিচার (Squeezable Feature), এইচটিসি যার নাম দিয়েছে এজ সেন্স (Edge Sense)। এই স্কুইজেবল ফিচারটির কারনে আপনি মোবাইল এর দুই পাশে হালকা চাপ দিয়ে কোন একটা অ্যাপ্লিকেশন চালু করতে পারবেন। আর কোন অ্যাপ্লিকেশনটি চালু হবে তা সেটিং থেকে ঠিক করা যাবে। তবে এতে ৩.৫ মি.মি. হেডফোন জ্যাক সাপোর্ট করে না তাই হয় আপনাকে ডিফল্ট হেডফোন ব্যবহার করতে হবে কিংবা ব্লুটুথ হেডফোন ব্যবহার করতে হবে। বাংলাদেশের বাজারে এই স্মার্টফোনটির মুল্য প্রায় ৬৬,৯০০ টাকা।

এলজি ভি৩০

এলজি ভি৩০

এলজি ভি৩০

তালিকার পরবর্তী স্থানে রয়েছে এলজি ভি৩০ (LG V30)। প্রযুক্তি দুনিয়ায় স্যামসাংয়ের গ্যালাক্সি নোট ৮ বা আইফোন এক্স নিয়ে যতটা আলোচনা আর তোলপাড় হয়েছে সে তুলনায় কোরিয়ান টেক জায়ান্ট এলজি’র ফ্ল্যাগশিপ ভি৩০ (LG V30) নিয়ে তেমন কানাঘুষা হয়নি। এই স্মার্টফোনটির সবচেয়ে বড় আকর্ষণ হিসেবে হচ্ছে এর ক্যামেরা। স্মার্ট অপটিকাল ইমেজ স্ট্যাবিলাইজেশন (ওআইএস) সুবিধার ১৬ মেগাপিক্সেল এবং ওয়াইড অ্যাঙ্গেলে ছবি তোলার জন্য ১৩ মেগাপিক্সেলের দুটি আলাদা ক্যামেরা রয়েছে এই স্মার্টফোনে। এছাড়া ‘সিনে ভিডিও মোড’ নামে নতুন একটি ক্যামেরা ফিচারও যুক্ত হয়েছে এলজি ভি৩০ স্মার্টফোনটিতে, যার মাধ্যমে ফ্রেমের মধ্যে থাকা সকল কিছুকে জুম করা যাবে। ভি৩০ স্মার্টফোনে আরো থাকছে ৬ ইঞ্চি ‘ফুলভিশন’ ওএলইডি ডিসপ্লে (OLED Display)। এতে আরও থাকছে ৪ গিগাবাইট র‍্যাম, কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৮৩৫ (Qualcomm Snapdragon 835) চিপসেট এবং ৬৪ গিগাবাইট ও ১২৮ গিগাবাইটের দুটি ভিন্ন সংস্করণ। এতে হাই-ফাই কোয়াড ড্যাক (ডিজিটাল টু অ্যানালগ অডিও কনভার্টার) থাকার কারনে অডিওর দিক থেকেও এই স্মার্টফোনটি হবে অতুলনীয়। স্মার্টফোনটি ধুলাবালি এবং পানিরোধী। আর নিরাপত্তা ফিচার হিসেবে থাকছে ফেস রিকগনিশন এবং ভয়েস রিকগনিশন টেকনোলজি, আছে ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সরও। বাংলাদেশের বাজারে এই স্মার্টফোনটির মুল্য প্রায় ৬৯,৯০০ টাকা।

আরো পড়ুন:  টপ ৫: বছরের সেরা ল্যাপটপ (২০১৭)
স্যামসাং গ্যালাক্সি নোট ৮

স্যামসাং গ্যালাক্সি নোট ৮

স্যামসাং গ্যালাক্সি নোট ৮

২০১৭ সালের ২য় সেরা স্মার্টফোন হল গ্যালাক্সি নোট ৮ (Samsung Galaxy Note 8)। ২০১৬ সালে স্যামসাং গ্যালাক্সি নোট ৭ নিয়ে প্রবল বিতর্ক হওয়ার পর ২০১৭ সালে স্যামসাং নিয়ে আসে এই স্যামসাং গ্যালাক্সি নোট ৮ (Samsung Galaxy Note 8)। এটি গ্যালাক্সি নোট সিরিজের অন্যান্য ফোনের মত স্যামসাং এর ফ্ল্যাগশিপ স্মার্টফোন। স্যামসাং এর এই ফ্ল্যাগশিপ স্মার্টফোনটি (স্যামসাং গ্যালাক্সি নোট ৮) ২০১৭ সালের সেরা অ্যান্ড্রয়েড ফোন। আর হবেই বা না কেন? এর অত্যাধুনিক ডিজাইন সবাইকে যেন মোহিত করে ফেলেছে। এর ৬.৩ ইঞ্চি মাপের এজ-টু-এজ ডিসপ্লেটি এককথায় অসাধারন স্যামসাং যার নাম দিয়েছে ইনফিনিটি ডিসপ্লে (Infinity Display)। এর পাশাপাশি প্রথমবারের মতো কোন গ্যালাক্সি নোট ফোনে ডুয়াল ক্যামেরা (১২ এবং ৮ মেগাপিক্সেল) যোগ করেছে স্যামসাং। স্মার্টফোনটিতে আরো ব্যবহার করা হয়েছে দ্রুতগতির কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৮৩৫ (Qualcomm Snapdragon 835) প্রসেসর এবং ৬ জিবি র‍্যাম!!! তবে, এবার ব্যাটারি নিয়ে স্যামসাং এর বাড়তি সতর্কতার জন্য এতে তুলনামূলক ছোট ব্যাটারি ব্যবহার করা হয়েছে যার ফলে গ্যালাক্সি নোট ৮ এর ব্যাটারি রাখা হয়েছে নন-রিমুভেবল ৩৩০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ার (3300 mAh)। আর নোট সিরিজের সিগনেচার ফিচার এস পেন স্টাইলাসও (S Pen | Stylus Pen) রয়েছে এতে যাতে রয়েছে নতুন কিছু ফিচারও। নতুন এই গ্যালাক্সি নোট ৮ স্মার্টফোনটিতেও রাখা হয়েছে স্যামসাংয়ের ভয়েস অ্যাসিস্টেন্ট সেবা বিক্সবি (Bixby)। বাংলাদেশের বাজারে এই স্মার্টফোনটির মুল্য প্রায় ৯৪,৯০০ টাকা।

আইফোন এক্স

আইফোন এক্স

আইফোন এক্স

২০১৭ সালের সেরা স্মার্টফোন হল আইফোন এক্স (iPhone X) বা আইফোন ১০ (iPhone 10)। প্রথম স্থানে আইফোন এক্স থাকার কারন হিসেবে বলা যায় এতে রয়েছে এখনো পর্যন্ত সবচেয়ে আকর্ষণীয় ওএলইডি (OLED) স্ক্রিন, চমৎকার এজ-টু-এজ ডিসপ্লে, দ্রুততম প্রসেসর ইত্যাদি সহ আর অনেক ফিচার। ডুয়েল ক্যামেরার এই স্মার্টফোনটিতে রয়েছে আর একটি হিডেন ক্যামেরা যার নাম ট্রু ডেপ্থ। এর মাধ্যমে পোর্ট্রেট মোডে সেলফি তোলা থেকে শুরু করে ফেস আইডি আনলক (Face ID Unlocking) পর্যন্ত করা যাবে! আইফোন এক্স (iPhone X) এর দ্রুততম প্রসেসরের কারন হল এতে ব্যবহার করা হয়েছে এ১১ বায়োনিক চিপ (A11 Bionic chip)। এছাড়া আছে অগমেন্টেড রিয়্যালিটি (Augmented Reality) অ্যাপস এবং গেমস যা আপনার স্মার্টফোন ব্যবহার এর এক্সপেরিএন্সকে নিয়ে যাবে অন্য লেভেলে। আর স্মার্টফোনের ফ্রন্ট ক্যামেরায় থাকা থ্রিডি ম্যাপিং সেন্সরের মাধ্যমে আপনার নিজের মুখভঙ্গিকে ইমোজি বানাতে পারবেন, যাকে অ্যাপল বলছে অ্যানিমোজি। আর তাছাড়া অনেকের কাছে অ্যাপল এর আইফোন হল আভিজাত্যের প্রতীক। তাই আপনার বাজেটে হলে ২০১৭ সালে স্মার্টফোন কিনার সময় অবশ্যই আপনার প্রথম পছন্দ হওয়া উচিত আইফোন এক্স (iPhone X)। বাজেটের কথা বলার কারন বাংলাদেশের বাজারে এই স্মার্টফোনটির মুল্য ১,১০,০০০+ টাকা।

২০১৭ সালের সেরা আরো কিছু স্মার্টফোন: গ্যালাক্সি এস৮ (Samsung Galaxy S8), গ্যালাক্সি এস৮ প্লাস (Samsung Galaxy S8 Plus), আইফোন ৮ (iPhone 8), আইফোন ৮ প্লাস (iPhone 8 Plus), গুগল পিক্সেল ২ (Google Pixel 2 ), এলজি জি৬ (LG G6), হুয়াওয়ে মেট ১০ প্রো (Huawei Mate 10 Pro)।

data-matched-content-rows-num="2" data-matched-content-columns-num="2"

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *