টপ ৫: ফেসবুক সম্পর্কে জানা অজানা তথ্য

বিশ্বের সবচেয়ে জনপ্রিয় ও সর্বাধিক ব্যবহৃত সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম হল ফেসবুক। ইন্টারনেট ব্যবহার করেন কিন্তু ফেসবুক অ্যাকাউন্ট নেই, এমন মানুষ খুজে পাওয়া খুব কঠিন। এমনকি অনেকের কাছে ইন্টারনেট মানেই যেন ফেসবুক। অনেকের তো সারাদিনই চলে যায় এই ফেসবুকের নিউজফীড দেখে আর ম্যাসেজিং করে। কিন্তু এই ফেসবুক সম্পর্কে আমরা কতটুকু জানি? ফেসবুকের ব্যবহারকারী মোট কতজন? ফেসবুকের আয় কিভাবে? কিংবা ফেসবুকের আয়ের পরিমাণ কত? ফেসবুক সম্পর্কে এমন সব প্রশ্নের উত্তর জানতেই চলুন দেখে নেওয়া যাক ফেসবুক সম্পর্কে জানা অজানা তথ্য গুলো।

ফেসবুক সম্পর্কে জানা অজানা তথ্য

ফেসবুকের ইতিহাস

ফেসবুকের প্রতিষ্ঠাতা মার্ক জাকারবার্গ
ফেসবুকের প্রতিষ্ঠাতা মার্ক জাকারবার্গ

আমরা সকলেই জানি যে ফেসবুকের সিইও এবং প্রতিষ্ঠাতা হলেন মার্ক জাকারবার্গ (Mark Zuckerberg)। ২০০৩ সালে হার্ভার্ডে ২ য় বর্ষের ছাত্র থাকাকালীন তিনি ‘ফেসম্যাস (Facemash)’ নামে একটি ওয়েবসাইট তৈরি করেছিলেন। তবে তখনকার সময়ে সেটা কোন সামাজিক যোগাযোগ সাইট ছিল না।

‘ফেসম্যাশ’ এর জনপ্রিয়তার কারণে মার্ক জুকারবার্গ এবং তার কলেজের কয়েকজন এডোয়ার্ডো সেভরিন, ডাস্টিন মোস্কোভিটিজ, ক্রিস হিউজেস, অ্যান্ড্রু ম্যাককালাম এবং আরও অনেকেই সাইটের নতুন কিছু বৈশিষ্ট্য যোগ করে এর আরো উন্নয়ন করা শুরু করেন। পরে, ২০০৪ সালের ৪ ফেব্রুয়ারিতে তারা ‘ফেসম্যাশ’ এর নতুন সংস্করণকে দ্যফেসবুক (TheFacebook) নামে নতুন একটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম হিসেবে চালু করে। লঞ্চ করার সাথে সাথেই জনপ্রিয়তা পায় এই দ্যফেসবুক।

ফলস্বরূপ, ফেসবুকের সহ-প্রতিষ্ঠাতারা ধীরে ধীরে এর পরিষেবাটি প্রসারিত করতে শুরু করলেন। ২০০৫ সালে, তারা ‘ফেসবুক ডটকম’ নামে একটি নতুন ডোমেন ক্রয় করে এবং নাম ‘দ্যফেসবুক’ থেকে ‘ফেসবুক’ এ পরিবর্তন করে। আর ২০০৫ সালের ডিসেম্বর মাসের মধ্যেই, ৬ মিলিয়নেরও বেশি ব্যবহারকারী ফেসবুকে যোগ দেয়।

ফেসবুকের ডোমেইন এবং নাম

ফেইসবুকের 'দ্যফেইসবুক' ডোমেইন
ফেইসবুকের ‘দ্যফেইসবুক’ ডোমেইন

‘দ্যফেইসবুক’ নামটি থেকে ‘দ্য’ নামটি সরানোর জন্য সংস্থাটি ২০০৫ সালে ‘অ্যাবাউটফেস কর্পোরেশন (AboutFace Corporation)’ থেকে একটি নতুন ডোমেইন নাম ক্রয় করেছিল। আর ‘ফেসবুক ডটকম (Facebook.com)’ ডোমেইনটি কিনার জন্য তারা প্রায় ২০০,০০০ মার্কিন ডলার খরচ করে।

পরবর্তীতে ২০১০ সালের ১৫ ই নভেম্বর – সংস্থাটি ঘোষণা করে যে, ফেসবুক ব্যবহারকারীরা ‘এফবি ডটকম (Fb.com)’ নামে একটি নতুন ডোমেইন ব্যবহার করে ফেসবুকে অ্যাক্সেস করতে পারবেন। তবে ফেসবুক এর জন্য কত পরিমাণ অর্থ খরচ করেছিল তা প্রকাশ করেনি। সেই সময়ে, Fb.com ডোমেন নামটি ছিল ‘আমেরিকান ফার্ম ব্যুরো ফেডারেশন’ এর অন্তর্ভুক্ত। পরে, ‘আমেরিকান ফার্ম ব্যুরো ফেডারেশন’ প্রকাশ করে যে, ‘এফবি ডটকম’ ডোমেইন নামটি কিনার জন্য ফেসবুক প্রায় সাড়ে ৮ মিলিয়ন মার্কিন ডলার ব্যয় করে।

ফেসবুক কীভাবে অর্থ উপার্জন করে

ফেসবুক কীভাবে অর্থ উপার্জন করে
ফেসবুক কীভাবে অর্থ উপার্জন করে

অন্যান্য সাইটের মতো ফেসবুকও প্রাথমিকভাবে বিজ্ঞাপন থেকে অর্থ উপার্জন করে। তবে এছাড়া তারা বিভিন্ন পেমেন্ট এবং ফি থেকেও অর্থ উপার্জন করে থাকে। ফেসবুকের প্রতিবেদন অনুসারে, ২০১৮ সালে কোম্পানির মোট রাজস্বের প্রায় ৯৮.৫% এসেছে বিজ্ঞাপন থেকে। তবে বিজ্ঞাপন থেকে আয়ের জন্য ফেসবুককে গুগল, অ্যাপল, অ্যামাজন ইত্যাদির মতো আরও বেশ কয়েকটি বড় সংস্থার সাথে প্রতিযোগিতা করতে হচ্ছে। তাই সম্প্রতি বিজ্ঞাপন থেকে আয়ের পরিমাণও কিছুটা কমছে।

ফেসবুকের আয়ের অন্য আরেকটি যায়গা হল ডেটা জেনারেশন। যদিও সাম্প্রতিক সময়ে কেমব্রিজ অ্যানালিটিকা (Cambridge Analytica) কেলেঙ্কারী ফেসবুকের ডেটা জেনারেশন আয়কে কিছুটা কমিয়েছে।

ফেসবুকের রাজস্ব এবং নেট ইনকাম

প্রতিবছরই ফেসবুকের আয় বাড়ছে। উদাহরণস্বরূপ, ২০১৮ সালে ফেসবুকের মোট রাজস্ব ছিল প্রায় ৫৫.৮ বিলিয়ন ডলার। তবে ২০১৯ সালে তা দাড়ায় প্রায় ৭০.৭ বিলিয়ন ডলারে। ২০১৮ সালে ফেসবুকের নিট আয় ছিল প্রায় ২২ বিলিয়ন ডলার। তবে ২০১৯ সালে তা দাড়ায় প্রায় ১৮.৪৮ বিলিয়ন ডলারে। নিচে বছর অনুযায়ী ফেসবুকের রাজস্ব দেওয়া হল:

বছররাজস্ব (মিলিয়ন ডলারে)বৃদ্ধি
২০০৪$০.৪
২০০৫$৯২১৫০%
২০০৬$৪৮৪৩৩%
২০০৭$১৫৩২১৯%
২০০৮$২৮০৮৩%
২০০৯$৭৭৫১৭৭%
২০১০$২,০০০১৫৮%
২০১১$৩,৭১১৮৬%
২০১২$৫,০৮৯৩৭%
২০১৩$৭,৮৭২৫৫%
২০১৪$১২,৪৬৬৫৮%
২০১৫$১৭,৯২৮৪৪%
২০১৬$২৭,৬৩৮৫৪%
২০১৭$৪০,৬৫৩৪৭%
২০১৮$৫৫,৮৩৮৩৮%
২০১৯$৭০,৬৯৭২৭%
ফেসবুকের রাজস্ব এবং বৃদ্ধি

সংখ্যায় সংখ্যায় ফেসবুক

  • মাসিক সক্রিয় ব্যবহারকারীদের মোট সংখ্যা: ২.৫০ বিলিয়ন।
  • মোবাইল সক্রিয় ব্যবহারকারীদের মোট সংখ্যা: ২.২৬ বিলিয়ন।
  • পিসি সক্রিয় ব্যবহারকারীদের মোট সংখ্যা: ১.৪৭ বিলিয়ন।
  • ফেসবুক স্টোরিজ দৈনিক ভিউ: ৫০০ মিলিয়ন।
  • ফেসবুক ব্যবহারকারীর ৫৪% মহিলা এবং ৪৬% পুরুষ।
  • ইন্টারনেট ব্যবহারকারীদের মধ্যে ৮৩% মহিলা এবং ৭৫% পুরুষ ফেসবুক ব্যবহার করেন।
  • গড়ে একজন ফেসবুক ব্যবহারকারীর ১৫৫ জন ফ্রেন্ড রয়েছে।
  • ফেসবুকের দৈনিক সক্রিয় ব্যবহারকারীদের প্রায় ৯০% মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র বা কানাডার বাইরে থেকে আসে।
  • ফেসবুকের বৃহত্তম জনসংখ্যা ভারত থেকে ২৭০ মিলিয়ন ব্যবহারকারী এবং তারপরে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে ১৯০ মিলিয়ন লোক রয়েছে। ব্রাজিল এবং ইন্দোনেশিয়া উভয়েরই প্রায় 120 মিলিয়ন ব্যবহারকারী।
  • এশিয়া থেকে মাসিক সক্রিয় ব্যবহারকারীগণ ১,০১৩,০০০।
  • ফেসবুকের ৭ মিলিয়নেরও বেশি বিজ্ঞাপনদাতা রয়েছে।
  • বিপণনকারীদের ৯৩% নিয়মিত ফেসবুক বিজ্ঞাপন ব্যবহার করে।
  • ফেসবুক বিজ্ঞাপনগুলির গড় সিপিসি $1.86, গড় সিটিআর ০.৯%, এবং গড় সিপিএম $11.20।
  • বিশ্বব্যাপী ডিজিটাল বিজ্ঞাপনের বাজারে ফেসবুকের ভাগ ১৯.৭%।
  • প্রতিদিন ১০০ মিলিয়ন ঘন্টার বেশি ভিডিও ফেসবুকে দেখা হয়।
  • ফেসবুকে প্রতি ৬০ সেকেন্ডে ৩১৭,০০০ স্ট্যাটাস আপডেট হয়; ৪০০ নতুন ব্যবহারকারী ফেসবুকে আসে; ১৪৭,০০০ ফটো আপলোড হয়; এবং ৫৪,০০০ টি লিঙ্ক শেয়ার করা হয়।
  • প্রতি ২০ মিনিটে ২০ মিলিয়ন ফ্রেন্ড রিকোয়েস্ট সেন্ড করা হয় এবং ৩ মিলিয়নের বেশি বার্তা আদান-প্রদান করা হয়।
  • ফেসবুক ১০১ টি ভাষায় অনুবাদ করা রয়েছে। প্রায় ৩০০,০০০ এর বেশি ব্যবহারকারী অনুবাদে সহায়তা করেছেন।
  • গত দশ বছরে ফেসবুকের মোট ৪.৬ বিলিয়ন ডাউনলোড রয়েছে।
  • ১.৪ বিলিয়ন মানুষ ফেসবুক গ্রুপ ব্যবহার করে।
  • ফেসবুকে সর্বাধিক অনুসরণকারী ব্যক্তি ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো (122 মিলিয়ন+)।
  • ফেসবুকে প্রায় ১২০ মিলিয়ন ভুয়া ব্যবহারকারী রয়েছে।
  • ফেসবুক ব্যবহারকারীদের ৭৪% প্রতিদিন সাইটে যান।
data-matched-content-rows-num="2" data-matched-content-columns-num="2"

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

11 Shares
Share via
Copy link