টপ ৫: নাজিম উদ্দিন এর সেরা ৫টি থ্রিলার বই

থ্রিলার!!! নামটা শুনলেই যেকোন পাঠকের মনে অন্যরকম এক অনুভূতির সৃষ্টি হয়। অন্য অনেক দেশেই মৌলিক থ্রিলার লেখা হয় আর সেসব থ্রিলার পড়ে পাঠকেরা তৃপ্ত হলেও মনের মধ্যে একটা যায়গায় আক্ষেপ ছিল আমাদের দেশে এত ভাল মৌলিক থ্রিলার কেন লেখা হয়না!!! সেই আক্ষেপ দূর করতে যেসব লেখক এগিয়ে এসেছেন তাদের মধ্যে প্রথম দিকেই আছে “নাজিম উদ্দিন“। চলুন দেখা নেয়া যাক এই লেখকের ৫টি সেরা থ্রিলার বই সম্পর্কে।

নাজিম উদ্দিন এর সেরা ৫টি থ্রিলার বই

নেমেসিস

নেমেসিস প্রচ্ছদ

নেমেসিস প্রচ্ছদ

তালিকার শুরুতেই বলতে হয় নাজিম উদ্দিনের অন্যতম সিরিজ “বাস্টার্ড ” এর ১ম পর্ব “নেমেসিস (Nemesis)” এর কথা। পক্ষাঘাতগ্রস্থ অবস্থায় দেশের জনপ্রিয় লেখক খুন হলেন নিজ অ্যাপার্টমেন্টে। প্রথমবারের মত দৃশ্যপটে আবির্ভূত হয় ইনভেস্টিগেটর জেফরী বেগ। আপাত দৃষ্টিতে সহজ একটি কেস খুব দ্রুতই হয়ে যায় সমাধান। কিন্তু এরপরই ঘাঘু ইনভেস্টিগেটরের চোখে ধরা পড়ে সব অস্বাভাবিকতা, আসে একের পর এক সাসপেক্ট, কিন্তু সবই যেন ঘটনাকে আগের চেয়েও ঘোলাটে করে। সুপরিচিত ধানমণ্ডির বুকে ঘটে যাওয়া প্রতিশোধের এক টানটান উত্তেজনা পূর্ণ মনোজ্ঞ এবং মৌলিক এক ডিটেকটিভ থ্রিলার।

আরো পড়ুন:  টপ ৫: দ্য দা ভিঞ্চি কোড এর মতো আরো ৫ টি বই

কন্ট্রাক্ট

কন্ট্রাক্ট প্রচ্ছদ

কন্ট্রাক্ট প্রচ্ছদ

তালিকার পরবর্তী স্থানেও আছে বাস্টার্ড সিরিজেরই ২য় বই “কন্ট্রাক্ট (Contract)“। পাঁচ লক্ষ টাকা দামের একটি টেলিফোন কল! আর কোটি টাকার ষড়যন্ত্র। পেশাদার খুনি বাস্টার্ডকে ফিরে আসতে হলো দেশে; কারন? একটি লাইফটাইম কন্ট্রাক্ট। কিন্তু আত্মবিশ্বাসী বাস্টার্ড তার মিশনে নেমে পড়তেই সব কিছু জট পাকাতে শুরু করে। বিশাল এক ষড়যন্ত্রের অংশ হয়ে যায় সে। এ দিকে দৃশ্যপটে আর্বিভূত হয় হোমিসাইড ইনভেস্টিগেটর জেফরি বেগ। তাদের দু’জনের লক্ষ্য একেবারেই ভিন্ন। এ হলো ষড়যন্ত্র আর পাল্টা ষড়যন্ত্র-রাজনীতি আর অন্ধকার জগতের উপাখ্যান। আর এই অন্ধকার জগতের উপাখ্যান সম্পর্কে পড়ে ফেলুন কন্ট্রাক্ট!

নেক্সাস

নেক্সাস প্রচ্ছদ

নেক্সাস প্রচ্ছদ

বলতেই হবে নাজিম উদ্দিনের বাস্টার্ড সিরিজটা আসলেই অত্যন্ত রোমাঞ্চকর। হ্যা, পরবর্তী বইটিও এই বাস্টার্ড সিরিজের, নাম নেক্সাস (Nexus)। চলুন দেখে আসি এই সিরিজের ৩য় বই নেক্সাস সম্পর্কে। অভিজাত স্কুল সেন্ট অগাস্টিনে খুন হলো নিরীহ এক জুনিয়র ক্লার্ক। হোমিসাইডের ইনভেস্টিগেটর জেফরি বেগ তদন্তে নামতেই দ্রুত ঘটনা মোড় নিতে থাকে – দৃশ্যপটে আবির্ভূত হয় ভয়ঙ্কর এক সন্ত্রাসীচক্র। কঠিন চ্যালেঞ্জের মুখে পড়ে যান ইনভেস্টিগেটর জেফরি বেগ। কিন্তু দমে যাবার পাত্র নয় সে। অবশেষে সত্য উদঘাটনে সফল হতেই সূত্রপাত ঘটে নতুন একটি উপাখ্যানের। কি সেই উপাখ্যান?! জানতে হলে পড়তে হবে নাজিম উদ্দিনের এই নেক্সাস বইটি।

আরো পড়ুন:  টপ ৫: ইনফার্নোর মতো আরো ৫ টি বই

রবীন্দ্রনাথ এখানে কখনও খেতে আসেনি

রবীন্দ্রনাথ এখানে কখনও খেতে আসেনি প্রচ্ছদ

রবীন্দ্রনাথ এখানে কখনও খেতে আসেনি প্রচ্ছদ

ফ্যান্টাসি + থ্রিলার এমন বই ও যে আমাদের দেশের একজন লেখক লিখতে পারে তা এই বইটি না পড়লে বুঝতেই পারবেন না। এই বইটা পড়লে কিছুক্ষনের জন্য হলেও চমকে যাবেন। মফস্বল শহর সুন্দরপুর। ছবির মতই সুন্দর। প্রকৃতির শোভা ছাড়া উল্লেখযোগ্য আর কিছু নেই বললেই চলে, কিন্তু সবাই জানে রবীন্দ্রনাথ এখানে কখনও খেতে আসেন নি! কেন আসেননি, তারচেয়েও বড় কথা কেন অনেকেই সেখানে ছুটে আসে! এক আগন্তুক এসে হাজির হল সেই সুন্দরপুরে। তার গতিবিধি অস্পষ্ট আর রহস্যময়। সে যেটা জানতে চায় সেটা ওখানকার খুব কম লোকেই জানে। আর যখন সেটা জানা গেল তখন বেরিয়ে এল রোমহর্ষক এক কাহিনী। পরিহাসের ব্যাপার হল সেই রোমহর্ষক কাহিনী কাউকে বলার মত সুযোগ সত্যি কঠিন!

১৯৫২ নিছক কোন সংখ্যা নয়

১৯৫২ নিছক কোন সংখ্যা নয় প্রচ্ছদ

১৯৫২ নিছক কোন সংখ্যা নয় প্রচ্ছদ

তালিকার সর্বশেষ বইটি পড়তে আপনাকে আমন্ত্রন। অসহ্য সাসপেন্স আর একশন থ্রিলার ধর্মী একটি বই এই “১৯৫২ নিছক কোন সংখ্যা নয়“। নতুন গাড়ি কিনে প্রথমদিন রাস্তায় নেমেই রহস্যজনক দুর্ঘটনার শিকার হলো সাংবাদিক সায়েম মোহাইমেন। এটা আর নিছক কোনো সড়ক দুর্ঘটনা হিসেবে থাকলো না – নাটকীয়ভাবেই মোড় নিলো ঘটনাপ্রবাহ। সমস্ত রহস্যের কেন্দ্রবিন্দু হয়ে উঠলো ১৯৫২! হত্যা-ষড়যন্ত্র, অপরাজনীতি, সামাজিক অবক্ষয়ের বাস্তবচিত্র বেরিয়ে এলো এক এক করে। অনেকগুলো ঘটনার জটপাকানো রহস্য আর সেই রহস্যের সমাধান দিতে পারে কেবল ১৯৫২-কারণ এটি নিছক কোনো সংখ্যা নয়!

পরিশেষে বলতে চাই আসুন সবাই বইয়ের আলোয় আলোকিত হই। আর হ্যা এটা আমার প্রথম লেখা। বর্ণনা এবং ভাষায় ত্রুটি থাকলে ক্ষমাসুন্দর দৃষ্টিতে দেখবেন। সবাই ভাল থাকবেন। আল্লাহ হাফেজ।

data-matched-content-rows-num="2" data-matched-content-columns-num="2"

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *