টপ ৫: সেরা পাইথন বই [বিগিনারদের জন্য]

শুরুতেই বলে রাখি, কোন প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ আয়ত্ত করাই সোজা কথা নয়। কারণ প্রোগ্রামিং এর বিভিন্ন কনসেপ্ট গুলো বুঝে আত্মস্থ করা এবং সেটাকে সমস্যা সমাধানে কাজে লাগানো অনেক কঠিন। যদি সিএসই বা কম্পিউটার সায়েন্স রিলেটেড ব্যাকগ্রাউন্ড না থাকে তবে শেখার এই পথটুকু আরো কঠিন মনে হবে। কিন্তু তবুও, যেহেতু আপনি পাইথনের সেরা বই সম্পর্কিত এই আর্টিকেলটি পড়ছেন তাই, ধরে নিচ্ছি আপনার পাইথন শিখতে চাওয়ার আগ্রহ রয়েছে।

পাইথন বিশ্বের সবচেয়ে জনপ্রিয় প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ। আর প্রোগ্রামিং জীবন শুরু করার জন্য এটি একটি উৎকৃষ্ট প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ। কেননা এটি অন্যান্য সকল প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজের মধ্যে তুলনামূলকভাবে অনেক সহজ। আর শিখতেও যেমন মজা, কাজ করেও তেমন আরাম। আর পাইথন ল্যাঙ্গুয়েজ শিখার পথটা আরেকটু সহজ হয়ে যাবে যদি হাতে একটি ভালো বই থাকে। আর তাই, শুরুতে পাইথন শিখার জন্য নিচের বইগুলো দেখতে পারেন।

সেরা পাইথন বই [বিগিনারদের জন্য]

Automate the Boring Stuff with Python: Practical Programming for Total Beginners

Automate the Boring Stuff with Python
Automate the Boring Stuff with Python

পাইথন শিখার জন্য বিগিনারদের অন্যতম পছন্দের একটি বই। বইয়ের প্রথমেই আপনাকে শেখানো হবে পাইথনের বেসিক। যেখানে আছে ভ্যারিয়েবল, স্ট্রিং, লুপ, লিস্ট, ডিকশনারি ইত্যাদি (সাথে ছোট ছোট অটোমেশন প্রোজেক্ট এবং এক্সারসাইজ তো আছে)। এরপর আরো আছে ইমেইল সেন্ডিং, ফাইল রিডিং (টেক্সট, সিএসভি, পিডিএফ, জিপ ইত্যাদি), প্যাটার্ন রিকগনিশন, ডাটা লোডিং, ওয়েব স্ক্র্যাপিং ইত্যাদির মত ব্যবহারিক কিছু কাজ করা। এছাড়া বইয়ে বেশকিছু দরকারি পাইথন লাইব্রেরীর কাজও দেখানো হয়েছে। তবে বইটিতে অবজেক্ট-ওরিয়েন্টেড প্রোগ্রামিং দেখানো হয়নি। বইটি কেনা যাবে এখান থেকে:

The Python Crash Course: A Hands-On, Project-Based Introduction to Programming

The Python Crash Course
The Python Crash Course

পাইথনের এই বইটি লিখেছেন এরিক মেথিওস। বইটিকে দুই ভাগে ভাগ করা যায়। যার মধ্যে ১ম অংশে লিস্ট, ডিকশনারি, লুপ, ক্লাস, স্ট্রিং ইত্যাদি এর মত সহজ বিষয়গুলো সম্পর্কে বুঝানো হয়েছে। আরো শিখবেন কিভাবে ক্লিন কোড করতে হয়, ইন্টারেক্টিভ প্রোগ্রাম করতে হয় এবং প্রোজেক্টে যুক্ত করার আগে নিরাপদে টেস্ট করতে হয়। আর ২য় অংশে আছে ৩টি রিয়েল লাইফ প্রোজেক্ট। যেগুলো হল স্পেস যুদ্ধ নিয়ে আর্কেড গেম, ওয়েব অ্যাপ এবং ডাটা ভিজ্যুয়ালাইজেশন (লাইব্রেরী ব্যবহার করে)। বইটি খুব সহজভাবে লেখা হয়েছে। বইটি কেনা যাবে এখান থেকে:

Learn Python 3 The Hard Way

Learn Python 3 The Hard Way
Learn Python 3 The Hard Way

পাইথন ল্যাঙ্গুয়েজ শিখার জন্য সফটওয়্যার ডেভেলপার জেড শ এর Learn Python The Hard Way বইটি বিগিনারদের জন্য খুবই জনপ্রিয় একটি বই। বইটিতে পাইথন ইন্সটল করা থেকে শুরু করে বিভিন্ন বিসয়ে আলোচনা করা হয়েছে যেমন গনিত, ভ্যারিয়েবল, স্ট্রিং, ফাইল, লুপ, ডাটা স্ট্রাকচার, প্রোগ্রাম ডিজাইন, ক্লাস, ইনহেরিটেন্স, প্যাকেজ সহ আরো অনেক কিছু। প্রোজেক্ট হিসেবে রয়েছে বেসিক ওয়েব ডেভেলপমেন্ট এবং বেসিক গেম ডেভেলপমেন্ট। এছাড়া বইটিতে বেশ কিছু এক্সারসাইজ রয়েছে। যেগুলো সমাধান করার মাধ্যমে আপনার সাধারন ভুলগুলোও কেটে যাবে। বইটি কেনা যাবে এখান থেকে:

Head First Python: A Brain-Friendly Guide

Head First Python
Head First Python

পল ব্যারির লেখা পাইথন শিখার এই বইটিতে বাস্তবিক এবং ব্যবহারিক প্রয়োগের চাইতে পাইথনের ফান্ডামেন্টালের উপর জোর দেওয়া হয়েছে (বিল্টিন ডাটা স্ট্রাকচার এবং ফাংশন)। তবে বইটিতে ওয়েব অ্যাপ্লিকেশন তৈরি, ডাটাবেজ ম্যানেজমেন্ট, এক্সেপশন হান্ডেলিং, ডাটা র‍্যাংলিং এর মত কিছু কনসেপ্টও আলোচনা করা হয়েছে। এই বইটি লেখা হয়েছে খুবই সাবলীলভাবে এবং খুব দ্রুতই শেষ করে ফেলতে পারবেন আপনি। কেননা বইটিতে একগাদা লেখার চাইতে গ্রাফিক দিয়ে খুব সহজে বুঝানো হয়েছে। বইটি কেনা যাবে এখান থেকে:

Learning Python

Learning Python
Learning Python

মার্ক লুটজ এর Learning Python বইটি বিগিনারদের জন্য খুবই জনপ্রিয় একটি বই। বইটিতে পাইথন ল্যাঙ্গুয়েজ সম্পর্কে খুব গভীরভাবে আলোচনা করা হয়েছে।। বিশেষকরে পাইথন স্ক্রিপ্ট ‘কিভাবে’ এবং ‘কেনো’ কাজ করে বা করছে জানতে চান তারা অবশ্যই বইটি পরবেন। বইটিতে মোটামুটি সবকিছুই দেখানো হয়েছে, যেমন ডাটা টাইপ, সিন্টেক্স, স্টেটমেন্ট, অপারেটর, মডিউল, ফাংশন, প্যাকেজ সহ আরো অনেক কিছু। বইটি শুধুমাত্র বিগিনারদের জন্যই নয় আডভান্স লেভেলের পাইথন প্রোগামিং শিখতেও অনুসরন করা যাবে। এছাড়া প্রতিটি চ্যাপ্টারের শেষে রয়েছে কুইজ। ফলে শেখার সাথে এক্সারসাইজও হয়ে যাবে। বইটি কেনা যাবে এখান থেকে:

পরিশেষে আবারো বলবো প্রোগ্রামিং এর বিভিন্ন কনসেপ্ট গুলো বুঝে আত্মস্থ করতে চর্চার কোন বিকল্প নাই, যতই বই পড়েন, ভিডিও দেখেন চর্চা না করলে তা বেশিদিন মনে থাকবে না। তাই, যখনই কোন আর্টিকেল বা বই ফলো করবেন তখনই ওই বই বা আর্টিকেল এর প্রোগ্রাম গুলো টাইপ করে করে রান করে দেখবেন। এতে করে আপনার কোডিং এবং টাইপিং দুটো স্কিলই বাড়বে।

বিশেষ করে শুরুর দিকে এটা ভালো কাজে লাগবে। কেননা কোড রান করতে গিয়ে আপনি অনেক সমস্যার মুখোমুখি হবে, আর সেগুলো সমাধান করতে গিয়ে নতুন আরো অনেক কিছুই জানা হবে।

data-matched-content-rows-num="2" data-matched-content-columns-num="2"

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *